বাম আমলের নিয়োগ দুর্নীতির ছবি প্রকাশ করে চ্যালেঞ্জের মুখে তৃণমূল

বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ::১৬ মার্চ সাংবাদিক সম্মেলন করে শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বোস বলেন, বাম আমলের পার্টির হোল টাইমারদের পরিবারের অনেকেই বেআইনি ভাবে সরকারি চাকরি পেয়েছে।

 

 

সেই বিষয়ে তারা একটি ‘শ্বেতপত্র’ বের করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। সেই প্রসঙ্গেই দলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ একটি পুরোনো সুপারিশ চিঠি তুলে ধরেন। সেই চিঠি বহু বছর আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সামনে এনেছিলেন। তখনই চিঠির তারিখ,কাগজ ও অন্যান্য অসঙ্গতি উল্লেখ করে বাম নেতারা বলেছিলেন,ওটা ফেক চিঠি। এমন কি তারা বলেছিলেন,তৃণমূল যেন ওই চিঠি নিয়ে আদালতে যায়। সিপিএম প্রমাণ করে দেবে ওটা অনেক পরে কৌশল করে লেখা হয়েছে। তখন ওই চিঠি নিয়ে আর চর্চা করেনি তৃণমূল। এবার আবার ওই চিঠি সামনে আনলেন কুণাল ঘোষ।

সিপিএম নেতা সমীক লাহিড়ী মমতার সরকারকে একহাত নিয়ে বলেন, “১২ বছরে বামেদের দুর্নীতির ফাইল অনেক দেখিয়েছিন। ৪ ডজন কমিশন করেছেন। কোটি কোটি টাকা খরচ করলেন। কিছু কী বার করতে পেরেছেন? এখন গোটা শিক্ষা দফতরটাই জেলে। কেন শিক্ষা দফতর জেলে সেটার আগে জবাব দিন। তদন্ত করতে চাইলে তদন্ত করুন না। কে আটকেছে। আগেই প্রমাণ হয়ে গিয়েছে এই চিরকুট কতটা জাল। গোটা পার্টিটাই জাল পার্টি, নিয়োগপত্রও জাল করছে। এখন চিরকুটও জাল করছে। জাল পার্টির থেকে এর থেকে বেশি কিছু আশা করা যায় না।”  এখন পর্যন্ত সমীক লাহিড়ীর প্রশ্নর সদুত্তর না পাওয়া গেলেও তৃণমূল যে শ্বেতপত্র তৈরি করছে তা ব্রাত্য বোস জানিয়েছেন।

প্রকাশ্যে আসা চিঠিটিতে দেখা হচ্ছে,চিঠিটি ২০০৮ সালের ২৭ ডিসেম্বর কমরেড খগেন্দ্রনাথ মাহাতোর উদ্দেশে লেখা হয়েছে। সেখানে লেখা, ‘কমরেড, আমি শ্রী মোহিতলাল হাজরা গ্রাম পালজাগুল পোস্ট জাগুল জেলা পশ্চিম মেদিনীপুর জানি ও চিনি। এবং খুব দুঃস্থ পরিবারের ছেলে। বামপন্থী আন্দোলনের সাথে যুক্ত। একে আপনার কাছে পাঠালাম। ধেড়ুয়া অঞ্চল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে গ্রুপ ডি পদে যে লোক নেওয়া হবে, সেই বিষয়ে যাহাতে একে নেওয়া যায়, তার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণে অনুরোধ করছি। পরে আপনার সাথে সাক্ষাৎ করে নেব।’ নীচে প্রেরকের নামের জায়গায় লেখা জয়জীম আহাম্মদ। এই চিঠি ধরেই বাম নেতারা চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে বলছেন, অত্যন্ত কাঁচা ফেক চিঠি তৈরি করেছে তৃণমূল। যদি সাহস থাকে তাহলে আদালতে চলুন। সুজন চক্রবর্তী বলেছেন,কোনটা দুধ আর কোনটা জল তা আমরা আদালতে প্রমাণ করে দেব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *