বীরভূম জেলার দুমকা – মনসুবা রাস্তার ঝনঝনিয়া মোড়ে নাকা চেকিং-এ বারুদ উদ্ধার!

বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ::বীরভূম জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে বারো মার্চ সন্ধ্যায় রামপুরহাট থানার এএসআই রৌওলিনশন মন্ডল দুমকা – মনসুবা রাস্তার ঝনঝনিয়া মোড়ে নাকা চেকিং করছিল ।

রুটিন মাফিক সমস্ত গাড়ি ধাপে ধাপে চেক করা হচ্ছিলো।আনুমানিক রাত নয়টা নাগাদ একটি মোটর সাইকেলে দুইজন লোক চেপে আসছিলো যারা চেকিং দেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এএসআই রৌওলিনশন মন্ডল ওরফে চন্দনবাবুর তৎপরতায় তাদেরকে আটক করে গাড়ির ডিকি খুললে দেখা যায় তিনটে প্লাস্টিক প্যাকেট আলাদা আলাদা রঙের গুঁড়ো পদার্থ আছে।শুঁকে দেখে বারুদের গন্ধ পান। বাড়ি মাড়গ্রামে এবং মুর্শিদাবাদ থেকে ওই বোমের মশলাগুলি ঝাড়খণ্ড নিয়ে যাচ্ছিলো এবং যথারীতি ওই বোমের মশলা রাখার জন্য কোনো বৈধ কাগজ দেখতে পারে নি। এই ধরনের বেআইনি বিস্ফোরক রাখার অভিযোগে ওই দুইজন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে রামপুরহাট থানার পুলিশ । ওই বিস্ফোরক ভর্তি প্যাকেট গুলো বাজেয়াপ্ত করে পুলিশ যাহার আনুমানিক ওজন পাঁচ কিলোগ্রাম। প্রকাশ থাকে যে ওই পাঁচ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক থেকে অন্তত পঞ্চাশ থেকে ষাটটি বোমা তৈরী করা যেত। পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জির নেতৃত্বে নিয়মিত সারপ্রাইজ নাকা চেকিং শুরু হয়েছে তাহার ফলস্বরূপ এইধরনের বিস্ফোরক উদ্ধার সম্ভব হলো বলে পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *