মোদি কি এবার নোবেল পাচ্ছেন?

বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক :: ভারতবর্ষ চিরকাল শান্তির বাণী প্রচার করে এসেছে। বৈদিক ঋষিরা, সাধক বুদ্ধদেব, মহাপ্রভু চৈতন্য, মহামানব রামকৃষ্ণ, বিবেকানন্দ থেকে মহাত্মা গান্ধী – সকলেই শান্তির বাণী প্রচার করেছেন।

এবার কি সেই শান্তির বাণীর স্বীকৃতি পেতে চলেছে ভারত। আরো স্পষ্ট করে বলা যায়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কি এবার শান্তিতে নোবেল পুরস্কারের অন্যতম দাবিদার?
খোদ নরওয়ের নোবেল কমিটির বক্তব্যে জোরাল হয়েছে এই আশা। সম্প্রতি ভারতে এসেছে নোবেল পুরস্কার কমিটি। তাদের মুখ থেকেই শোনা গেছে প্রধানমন্ত্রীর স্তুতি। নোবেল শান্তি পুরস্কার নিয়ে জল্পনার আবহে সম্প্রতি ভারতে এসেছে নোবেল প্রাইজ কমিটি। এরাই নোবেল শান্তি পুরস্কারের দাবিদার নির্বাচন করবে। মনে রাখতে হবে ইউক্রেন ও রাশিয়ার এক বছর ব্যাপী চলা যুদ্ধের ক্ষেত্রে নরেন্দ্র মোদি বার বার করেই মধ্যস্থতা করে দুই দেশকে আলোচনায় বসার পরামর্শ দিয়েছেন।

যখন প্রায় সমস্ত পৃথিবী দুই বৃহৎ শক্তি – আমেরিকা অথবা চিনের পক্ষ নিয়েছে, তখন কিন্তু মোদিজি নিরপেক্ষ ভূমিকা নিয়েছেন। সবথেকে বড় বিষয় ভারতে আগত এই নোবেল দলেই রয়েছেন কমিটির ডেপুটি  অয়াসলে তোজে। তিনিই শান্তি স্থাপনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসা করেছেন। তোজে বলেছেন, ”নরেন্দ্র মোদির মতো শক্তিশালী নেতাদের মধ্যেই শান্তি স্থাপনের ক্ষমতা থাকে।”  নোবেল কমিটির ডেপুটির মুখের এই কথাতেই আশায় বুক বাঁধছে দেশবাসী। তোজে বলেন, “ভারত থেকে নোবেল পিস প্রাইজের জন্য অনেক মনোনয়ন রয়েছে। আমি মনে করি, বিশ্বের সব নেতাই নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য যা প্রয়োজন তা করবেন।” তিনি আরো বলেন, ”প্রধানমন্ত্রী মোদি  এমন একটি শক্তিশালী দেশ থেকে এসেছেন, যাকে বিশ্বের দরবারে খুবই গুরুত্ব সহকারে দেখা হয়। ভারতীয়দের মধ্যে এক অপরিসীম ক্ষমতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে। আশা করি,  ভয়ানক যুদ্ধ থামাতে এই বিশ্বাসযোগ্যতা ও শক্তি ব্যবহার করবে ভারতীয়রা।”

এই পরিস্থিতিতেই ভারতবাসী আশায় বুক বাঁধছে। মনে করছেন, এবার মোদিজির মাধ্যমে ভারতবর্ষ ‘শান্তির ললিত বাণী বিশ্বের সর্বত্র পৌঁছে দেবে।’ মোদিজির মাধ্যমেই হয়তো হাজার হাজার বছর আগে বৈদিক ঋষির লেখা ‘বসুধৈব কুটুম্বকম’ সার্থকতা লাভ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *