সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেল খোলার বাসনা ছিল অয়ন শীলের

বেঙ্গল ওয়াচ ডেস্ক ::আয়ন শীল এখন বাংলা তথা ভারতের মানুষের কাছে অন্যতম নিউজ।

 

 

শিক্ষা থেকে স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্য থেকে পৌরসভা এমনকি পৌরসভা থেকে পুলিশের নিয়োগে ছিল আয়নের অবাধ বিচরণ। ইডির দাবি এই দুর্নীতিতে তার ভান্ডারে জমা পড়েছিল কয়েকশো কোটি টাকা। আর সেই কালো টাকা সাদা করার জন্যই তিনি একটি সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেল খোলার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

বেশ কয়েক জনের সঙ্গে বৈঠক করা থেকে কোথায় কত বিনিয়োগ করতে হবে, তার ছক কষা— তিনি কয়েক ধাপ এগিয়েওছিলেন সেই লক্ষ্যে। এমনটাই খবর এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) সূত্রে। অয়নের ভাড়াবাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে হরেক কিসিমের নথিপত্র উদ্ধার হয়েছে। তা থেকেই ধৃত শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠ’ এই প্রোমোটারের টিভি চ্যানেল করার পরিকল্পনার কথা জানতে পেরেছেন তদন্তকারীরা।

ইডি সূত্রের খবর,২০২১ সালে একটি সর্বভারতীয় টিভি চ্যানেল শুরু করতে উদ্যোগী হয়েছিলেন অয়ন। তার জন্য কয়েক কোটি টাকা বিনিয়োগ করার পরিকল্পনাও ছিল তাঁর। সেই অঙ্কটা প্রায় ১০০ কোটির কাছাকাছি! টিভি চ্যানেল শুরু করতে কী কী করতে হবে, কোথা থেকে কী অনুমোদন নেওয়া আবশ্যক, সেই ব্যাপারেও তিনি পরামর্শ নিচ্ছিলেন। ইডি সূত্রেরই দাবি, দিল্লিতে এই বিষয়টি নিয়ে বৈঠকও করেছিলেন অয়ন। সেই বৈঠকে এক সাংবাদিক ছাড়াও দিল্লি ও কলকাতার বেশ কয়েক জন হাজির ছিলেন বলে তদন্তকারীদের সূত্রে জানা গিয়েছে। যাদের কাছে আইন পরামর্শ চেয়েছিলেন, তাদের মধ্যে একজন বলেন, ‘‘চ্যানেল খোলার ব্যাপারে ওই সময় অনেকের কাছ থেকেই পরামর্শ নিয়েছিলেন অয়ন শীল।’’ তিনি কি ইডি-কে তদন্তে সাহায্য করতে প্রস্তুত? তার জবাবে ওই ব্যক্তি বলেন, ‘‘আমি যতটুকু জানি, জানতে চাওয়া হলে জানিয়ে দেব।’’ ফলে আইন শীল যে আরো ফেঁসে যাচ্ছে তাতে সন্দেহ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *