ট্রেন লেট – ৬০ হাজার টাকা ক্ষতি পূরণ আদায় করলো এক যাত্রী

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :লোকাল ট্রেন ঠিক সময় মতো চলবে – এটা ভাবাই যায় না। কিন্তু এই ট্রেনের সময়ের উপর বহু মানুষের জীবনে অনেক ক্ষতি হয়ে যায়। কিন্তু সবাই সেই ক্ষতি মানতে পারে না। এমনি একটি ঘটনা সামনে এসেছে। ট্রেন লেট নিয়ে ক্ষোভ-বিক্ষোভের পাশাপাশি ঠাট্টা-তামাশাও চলে নিত্যযাত্রীদের মধ্যে। যদিও তার জেরেই এবার ক্ষতিপূরণ গুনতে হবে রেলকে। ট্রেন দেরিতে চলায় ভুক্তভোগী এক যাত্রী মামলা করেছিলেন রেলের বিরুদ্ধে। সেই মামলায় রেলকে মোটা অঙ্কের জরিমানা করল উপভোক্তা বিষয়ক আদালত। ঘটনায় উৎসাহিত অনেকেই। অল্পসল্প লেট মেনে নেওয়া যায়। কিন্তু বেশি লেট হলে অনেকের অনেক ক্ষতি হয়ে যায়।

চেন্নাইয়ের বাসিন্দা কার্তিক মোহন রেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন উপভোক্তা আদলতে। ঘটনাটি ২০১৮ সালের ৬ মে-র। ওই দিন ১৩ ঘণ্টা লেট করেছিল দক্ষিণ রেলওয়ের চেন্নাই আলেপ্পি এক্সপ্রেস। এই বিষয়ে আগে থেকে জানানো হয়নি যাত্রীদের। কার্তিকের দাবি, এর ফলে তাঁর পেশাদারি জীবনের বড়সড় ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। সেদিন অফিসের একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। ট্রেন ১৩ ঘণ্টা লেট করায় যা সম্ভব হয়নি। কেরিয়ারের ক্ষতি হওয়ায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। ওই ট্রেনে বেশকিছু চাকরিপ্রার্থীও ছিলেন। পরীক্ষাকেন্দ্রে সময় মতো পৌঁছাতে না পারায় যাঁরা পরীক্ষা দিতে পারেননি। এর পরেও আদালতের রায় যায় ওই যাত্রীর পক্ষে। পাঁচ বছর বাদে ওই মামলার রায়ে ভারতীয় রেলকে ৬০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে বলল আদালত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *