ইডির নজরে পঞ্চায়েত কর্মী থেকে একাধিক আমলা

 

 

 

 

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::১০০ দিনের কাজে দুর্নীতির তদন্তে রাজ্যজুড়ে ম্যারাথন তল্লাশি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের! গতকাল কলকাতা সহ রাজ্যের চার জেলায় তল্লাশি তদন্তকারী সংস্থা। স্ক্যানারে আমলা সহ একাধিক প্রভাবশালী। আর এই বিষয়ে আরও গভীরে যেতে সন্দীপ সাধুখাঁ’কে তলব করল ইডি (ED)।

সোমবার ১২ ই ফেব্রুয়ারি সিজিও কমপ্লেক্স এই পঞ্চায়েত কর্মীকে তলব করা হয়েছে। তবে এদিন তাঁর চন্দননগরের বাড়িতে সাড়ে সাত ঘন্টা ম্যারাথন তল্লাশি চালায় ইডি। দীর্ঘ তল্লাশিতে (100 Days Work Scam) বেশ কিছু নথি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

একশো দিনের কাজে দুর্নীতি (100 Days Work Scam) মামলায় প্রথম তদন্ত শুরু করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। সেই মতো গতকাল সল্টলেক সহ বিভিন্ন জেলায় পৌঁছে যান ইডি আধিকারিকরা। তল্লাশি চলে আমলাদের বাড়িতেও। শুধু তাই নয়, গতকাল বেলা ১২ টায় ইডি সন্দীপ সাধুখাঁর বাড়িতেও হানা দেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

ঘিরে ফেলা হয় গোটা বাড়ি। সেই সময় অবশ্য বাড়িতে ছিলেন না সন্দীপ। বর্তমানে জগৎপুর পঞ্চায়েতে কর্মরত তিনি। এর আগে ধনেখালির বেলমুড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের নির্মাণ সহায়ক ছিলেন। ১০০ দিনের কাজে দুর্নীতিতে (100 Days Work Scam) সন্দীপের ভূমিকা ইডির স্ক্যানারে। তবে এদিন সন্দীপের স্ত্রী এবং মা’কে দীর্ঘ জেরা করেন তদন্তকারীরা।
বেশ কিছু প্রশ্নের ইয়ত্তর জানতে চান বলে খবর। অন্যদিকে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে তল্লাশি (100 Days Work Scam) চলে সল্টলেকের একটি সরকারি আবাসনে। এমনকী ঝাড়গ্রামের এক সরকারি আধিকারিকের কোয়ার্টারেও সকালেই পৌঁছে যান ইডি আধিকারিকরা। পাশাপাশি বহরমপুরেও তল্লাশি চালান আধিকারিকরা।

আর এই তল্লাশিতে বেশ কিছু তথ্য ইডির হাতে এসেছে বলে জানা গিয়েছে। আর সেই সমস্ত তথ্যের ভিত্তিতে আরও দুর্নীতির তদন্তে আরও গভীরে পৌঁছতে চায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *