হাওড়ার ফোরশোর রোড সংলগ্ন এক জুটমিলে সাত সকালেই ভয়াবহ অগ্নিকান্ড

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

শুক্রবারটা মোটেই ভালোভাবে শুরু হলো না। হাওড়ায় ফোরশোর রোড সংলগ্ন এক জুটমিলে প্রবল অগ্নিকান্ড ঘটলো সকালেই। দাউ দাউ করে জ্বলছে গোডাউন। কালো ধোঁয়ায় পুরো এলাকা ঢেকে গিয়েছে। শুক্রবার সাত সকালে এমনই দৃশ্য দেখে শিউরে উঠলেন হাওড়ার ফোরশোর রোড সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দারা। এলাকার একটি গোডাউনে আগুন লাগে প্রথমে। স্থানীয় বাসিন্দারা খবর দেওয়ার পর ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন। পুরোদমে চলছে আগুন নেভানোর কাজ। তবে ভিতরে দাহ্য পদার্থ আছে বলে অনুমান করা হচ্ছে, ফলে আগুন নেভাতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে দমকলকর্মীদের। এছাড়া জলের অভাব থাকায় আগুন নেভানো সম্ভব হচ্ছে না। ৩ ঘণ্টা পরও পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। তবে দমকল আধিকারিকরা বলছেন, আগুন আর অল্প সময়ের মধ্যেই নিয়ন্ত্রনে চলে আসবে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এদিন ভোর সাড়ে ৫ টা নাগাদ প্রথম একটি জুটমিলে আগুন দেখতে পান তাঁরা। তারপর চোখের নিমেষে সেই আগুন ভয়াবহ আকার নেয়। যে জায়গায় আগুন লেগেছে সেখানে পোশাক সহ বেশ কিছু পণ্যের গোডাউন আছে বলে জানা যাচ্ছে। আর ওই সব গুদামের পাশেই রয়েছে একটি পেট্রোল পাম্প। ফলে, আতঙ্ক বেড়েছে কয়েকগুন। ভিতরে দাহ্য পদার্থও রয়েছে অনেক। ফলে সকলেই চিন্তিত।

ঘটনাস্থলে গিয়েছেন দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু। এই কারখানা গুলিতে অগ্নি নির্বাপক ব্যবস্থা ছিল না কেন, তার তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।
ইতিমধ্যে খবর, মোট সাতটি গুদাম পুড়ে গিয়েছে। কারখানায় যন্ত্রপাতির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গেলেন হাওড়ার পুলিশ কমিশনার প্রবীন কুমার ত্রিপাঠী। পুরো এলাকা ঘুরে দেখেন তিনি। কথা বলেন স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে। শেষ খবরে আগুন প্রায় নিয়ন্ত্রনে চলে এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *