পেনশনভোগীরা বড় সুবিধা পাবেন!

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

 

 

ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেমে নতুন নিয়ম অন্তর্ভুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এই প্রক্রিয়ায় এনপিএসের আওতায় আসা কর্মীদের জন্য টাকা তোলা খুবই সহজ হবে। পেনশন ফান্ড রেগুলারিটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি এই পরিবর্তনগুলি আনার জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুতি নিয়েছে।

পেনশন ফান্ড রেগুলারিটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটির ২৭ অক্টোবর, ২০২৩-এ জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে স্পষ্ট করে বলা হয়েছে, নিয়ম ৩ ও নিয়ম ৪ পরিবর্তন করে, এটি নির্ধারিত সময়ের পরে অর্থ তোলার জন্য সিস্টেমিটিক লাম্প সাম উইথড্রয়াল শুরু করতে চলেছে। এর আওতায় এনপিএস অ্যাকাউন্টধারীরা পেনশন তহবিলে জমা করা পরিমাণের ৬০ শতাংশ তুলতে পারবেন।

এসএলডব্লুতে গ্রাহকের সুবিধা অনুযায়ী ৭৫ বছর বয়স পর্যন্ত মাসিক, ত্রৈমাসিক, অর্ধ-বার্ষিক বা বার্ষিক ভিত্তিতে টাকা তোলার স্বাধীনতা থাকবে। এসএলডব্লু হল মিউচুয়াল ফান্ডের অধীনে থাকা সিস্টেমেটিক উইথড্রয়াল প্ল্যানের মতো। এনপিএসের আওতায় আসা লোকেরা তাদের পছন্দের সময়ের ব্যবধানে টাকা তুলতে পারবেন।

এর অধীনে ৬০ বছর বয়সে পৌঁছনোর পরে গ্রাহক ৪০ শতাংশ তহবিল থেকে যে বিকল্প বেছে নিন না কেন, অবসরপ্রাপ্ত কর্মী ৭৫ বছর বয়স পর্যন্ত অবিচ্ছিন্নভাবে অর্থ প্রদান করতে থাকবে। গ্রাহক তহবিলের অবশিষ্ট ৬০ শতাংশ একসঙ্গে বা পদ্ধতিগতভাবে এসএলডব্লু-র অধীনে তুলতে সক্ষম হবেন।
এসএলডব্লুর সাহায্যে পেনশনভোগীরা টাকা পেতে থাকবেন। অবসর গ্রহণের পরে তাদের একটি নির্দিষ্ট আয় রয়েছে, তা এটি নিশ্চিত করবে। এই প্রক্রিয়ায় গ্রাহক একবার বিকল্প বেছে নেওয়ার সুযোগ পাবেন।

যাঁরা অবসরগ্রহণের পরেও একটি নির্দিষ্ট আয় চান, তারা এই স্কিম থেকে উপকৃত হবেন। অবসর গ্রহণের সময় এই সুবিধা নেওয়া যেতে পারে।

উল্লেখ করা প্রয়োজন, এনপিএস হল ভারত সরকারের একটি প্রোগ্রাম যা পেনশন ফান্ড রেগুলারিটি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটির দ্বারা পরিচালিত হয়। এনপিএস ইক্যুইটি, সরকারি সিকিউরিটিজ এবং কর্পোরেট বন্ড-সহ অনেক জায়গায় অর্থ বিনিয়োগ করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *