নেশার ওষুধ পাচার করতে গিয়ে হাসনাবাদে গ্রেফতার দুই বিজেপি নেতা

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি যত বেশি নিজের শক্তি বাড়াচ্ছে, ততই বাড়ছে তাদের নেতা কর্মীদের সম্পর্কে অভিযোগ। এবার অভিযোগ চোরা চালনের। বসিরহাট সীমান্তে ধরা পড়ে দুই নেতা। প্যাডেল ভ্যানে প্রচুর মালপত্রের সঙ্গে মিশেছিল। কিন্তু দুঁদে কর্তাদের চোখ এড়ায়নি। দেখেই ঠাওর করতে পেরেছিলেন। ভ্যান দাঁড় করিয়ে তাঁরা প্রশ্ন করেন। দুই ভ্যানচালকের চোখে মুখেই তখন প্রবল অস্বস্তি। ভ্যানে তল্লাশি চালাতে উদ্ধার নিষিদ্ধ কাফসিরাপ। বসিরহাটের হাসনাবাদ থানার ভারত-বাংলাদেশ সৈয়দপুর সীমান্তের ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ধৃতদের পরিচয়, তাঁরা দু’জনই এলাকার বিজেপি নেতা। ধৃতদের নাম ভোলা দাস ও পল্টু দাস। ধৃত ভোলা দাস টাকি নগরের বিজেপির শক্তি প্রমুখ ও পল্টু দাস টাকি পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ডের কমিটির সদস্য। স্বাভাবিক কারণেই এই নিয়ে সাধারণ মানুষ খুবই উত্তেজিত। যদিও স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব এই দেয় নেয় নি।

জানা যাচ্ছে, একটি সাধারণ পায়ে টানা ভ্যান গাড়ি করে অনেক মালপত্র যাচ্ছিলো ওই পথ দিয়ে। রুটিন তল্লাশির সময়ে বিএসএফের ৮৫ নম্বর ব্যাটেলিয়ানে জওয়ানরা তাঁদের হাতেনাতে পাকড়াও করেন। তল্লাশি চালাতেই তাঁদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ২৪ বোতল ফেনসিডিল ও দুটি মোবাইল ফোন। এই দুই বিজেপি নেতা গ্রেফতার হওয়ায় রাজনৈতিক চর্চা শুরু হয়েছে টাকি ও হাসনাবাদ জুড়ে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব সোচ্চার। বসিরহাট তৃণমূল কংগ্রেস ছাত্র পরিষদের সভাপতি অভিষেক মজুমদার বলেন, এরকম খোঁজ করলে আরও অনেককেই পাওয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *