রাজপথে কৃতী চাকরি প্রার্থীরা। তার মধ্যেই নতুন টেট পরীক্ষার বিজ্ঞাপ্তি

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে যে গভীর জালে রাজ্য সরকার জড়িয়ে পড়েছে, সেই জাল থেকে মুক্ত তো হতেই পারছে না, তার মধ্যে আবার নতুন টেট পরীক্ষার বিজ্ঞাপ্তি। এখনও নিয়োগ প্রক্রিয়াই এগোয়নি ২০১৭ ও ২০২২-এর টেটের। তার মধ্যে ১০ ডিসেম্বর ফের রাজ্যে প্রাইমারি টেট পরীক্ষা। কিন্তু বিষয়টা নিয়ে তৈরি হতে পারে জটিলতা, মনে করছেন শিক্ষাবিদরা। সমস্ত বিষয়টা এখন আদালতের বিচারাধীন। তার মধ্যে আবার নতুন পরীক্ষা। আমরা জানি, শুক্রবার রাজ্যে কলেজ স্ট্রিট থেকে ২০২২ সালের টেট পাশ চাকরিপ্রার্থীরা আন্দোলন করলেন। কয়েকজন যতীন দাস পার্ক থেকে কালীঘাট পর্যন্ত যেতে গিয়ে গ্রেফতারও হয়েছিলেন। কয়েক জন আবার বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে। রাজ্যে চাকরিপ্রার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত। সেই চাকরি প্রার্থীদের পক্ষে প্রায় সমস্ত বিরোধী রাজনৈতিক দল।

আমরা সবাই জানি, ২০১৭ সালে টেট হয়েছে, ২০২২ সালে টেট হয়েছে, কিন্তু একজনেরও চাকরি হয়নি। তারই মধ্যে আবার ২০২৩ সালের টেট পরীক্ষা হবে ১০ ডিসেম্বর। এই পরীক্ষা কীভাবে সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করা যায়, তা নিয়েই বৈঠক। তবে সত্যিই কি এই পরীক্ষা বিধি সম্মত? প্রশ্ন উঠেছে তা নিয়েও। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০১৭ ও ২০২২ সালের টেট উত্তীর্ণ চাকরিপ্রার্থীদের কী হবে? তার কোনও সদুত্তর আপাতত নেই পর্ষদের কাছেও। কারণ কেবল ‘১৭ কিংবা ‘২২ সাল তো বটেই, তার আগেই ‘১৪ সালের টেট উত্তীর্ণদের ‘ব্যাক লগ’ নিয়ে ভাবতে হবে। কারণ তাঁরাও অপেক্ষায় রয়েছেন। এর মধ্যে আবার নতুন পরীক্ষা? সমস্ত বিষয়টাই ধোঁয়াশায় ভরে উঠেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *