গত বছরের দুর্ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে ‘মাল’ নদীতে কড়া নিরাপত্তা

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

সকলেরই মনে আছে প্রশাসনের দূরদর্শতার অভাবে গত বছর হড়পা বাণে বিসর্জনের দিন উত্তরবঙ্গের মাল নদীতে সেই ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনার কথা। তার থেকেই শিক্ষা নিয়ে এ বছর প্রশাসন অনেক সতর্ক। তাই বিসর্জনের আগে সতর্ক প্রশাসন। গত বছরের দুর্ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে মালবাজারের মাল নদীতে প্রশাসনের তরফে নিরঞ্জন ঘিরে কড়াকড়ি করা হয়েছে এবার। নিরঞ্জনের জন্য নামতে দেওয়া হবে না কোন পুজো উদ্যোক্তা এবং দর্শনার্থীদের। ঠাকুর ভাসানের যাবতীয় দায়িত্বে থাকবে প্রশাসনের লোকজন এবং মাল পৌরসভার কর্মীদের উপর। ইতিমধ্যে মাল নদীতে তড়িঘড়ি ঘাট তৈরির কাজ শেষ হয়েছে । বোল্ডার দিয়ে নদীর পাড় বাঁধানোর কাজও শেষ হয়েছে । কংক্রিট ও লোহার তৈরি গ্রিল লাগানো হয়েছে। সবদিক থেকেই সচেতন প্রশাসন।

প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় যাতে কোনওভাবেই নদীতে নামতে না পারেন দর্শনার্থীরা, এমনকী পুজো উদ্যোক্তারাও, সে বিষয়টিতে সব থেকে বেশি জোর দেওয়া হচ্ছে। সূত্রের খবর, ভাসানের জন্য নদীতে না নেমে হাইড্রলার জেসিবি মেশিন ব্যবহার করা হবে। ইতিমধ্যেই পুলিশ প্রশাসনের তরফে একাধিকবার বৈঠক করা হয়েছে। বৈঠক করা হয়েছে পুজো উদ্যোক্তা ও এলাকার বাসিন্দাদের নিয়ে। পুজো উদ্যোক্তারাও ওই ভয়াবহ ঘটনার স্মৃতি ভুলতে পারেননি। তাই সতর্ক রয়েছেন তাঁরাও। নিরঞ্জনের দিন নদীতে যাতে কেউ না নামেন সেই বার্তাও দিচ্ছেন উদ্যোক্তারা। এখন দেখার বিষয় শেষ পর্যন্ত প্রশাসনিক তৎপরতা কতটা কার্যকরী হয়। প্রসঙ্গত স্মরণীয় গত বছর বিসর্জনের দিন হঠাৎ আসা হড়পা বাণে ৮ জন মারা গিয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *