বিরাটের হাতে পৌঁছে গেল সচিনের সই করা জার্সি!

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

 

১২ বছর পর বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলতে নামল ভারত। ২০১১ এবং ২০২৩ সালের ফাইনা‌লের দলে একটাই কমন নাম, বিরাট কোহলি। ২০১১ সালের দলের তরুণ সদস্য বর্তমানে ভারতের সিনিয়র ক্রিকেটার। কোহলি সেই ম্যাচে ব্যাট হাতে বড় রান করতে পারেন‌নি। এবার সেই আক্ষেপ মেটানোর পালা কোহলির সামনে। কারণ তিনিই যে এই দলের মূল নিউক্লিয়াস।

১২ বছরে একটা প্রজ‌ন্ম পাল্টে যায়, কোহলিও পাল্টেছেন। এই ১২ বছরে কোহলির মধ্যেও এসেছে বিরাট পরিবর্তন।কোহলি থেকে তিনি এখন কিং কোহলি। সেদিনের সচিনের ফ্যান বয় বিরাট আজ নিজের আইকনের একাধিক রেকর্ড ভেঙেছেন। তারমধ্যে উল্লেখযোগ্য একদিনের ক্রিকেটে ৪৯টি শতরানের মাইলস্টোন। ম্যাচ শুরুর আগেই বিরাটের হাতে পৌঁছে গেল সচিনের সই করা জার্সি।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সোশ্যাল সাইটে দুটি ছবি পোস্ট করা হয়।সেখানে দেখা যাচ্ছে সচিন তেন্ডুলকরের সই করা একটি জার্সি হাতে দাঁড়িয়ে আছেন কোহলি। আরও একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে বিরাটের হাতে একটি ফটো রয়েছে। সচিনের সঙ্গে তাঁর একটি মুহূর্তের ছবিই সেটা। ক্যাপশনে লেখা হচ্ছে, একটি বিশেষ অনুষ্ঠা‌ন প্রাক ম্যাচ মুহুর্তে। সচিন তেন্ডুলকর ২০১১, বিরাট কোহলি ২০২৩।’
বর্তমান সময়ে বার বারই সচিনের সঙ্গে কোহলির তুলনা চলে আসে। বিশেষ করে সেমিফাইনাল ম্যাচে ৫০টি ওডিআই শতরান করার পর। তবে নিজের আইকনের সঙ্গে এই তু‌লনাতে কিছুটা লজ্জিতই হন কোহলি। সেটা তিনি তাঁর বক্তব্যেই বলেছেন‌।

এই ম্যাচে নামার আগে ১২ বছর আগে স্মৃতির সরণীতে ফিরে গিয়েছেন কোহলি। সম্প্রচারকারী চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে তুলে ধরেছেন ১২ বছরে তাঁর মধ্যে কী কী পরিবর্তন হয়েছে। কোহলিকে প্রশ্ন করা হয়েছে ২০১১ সালে আপনার ওজন কত ছিল? কোহলি ভেবে উত্তর দেন ৭৫ কেজি মনে হয়। বর্তমানে কত সেটা খোলসা করেননি।

১২ বছর আগে আর এখন আপনার প্রিয় গায়ক কে? কোহলি উত্তর দেন, ২০১১ সালে কোনও পছন্দই ছিল না সেভাবে, যে কোনও গানই শুনতাম, তবে এখন প্রিয় গায়ক অরিজিত সিং।অবসর সময় কীভাবে কাটান এই প্রসঙ্গে কোহলি বলেন, ‘২০১১ সালে কোনও পরিকল্পনাই সেভাবে থাকত না, যে কোনও কিছু করেই অবসর সময় কাটাতাম। এখন মূলত বই পড়ি।’
ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে কোহলির উত্তর, ‘কোনও পরিকল্পনা নেই। এটা নিয়ে খুব বেশি ভাবিন না, বর্তমানে ফোকাস করি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *