বিশ্বকাপে স্টেডিয়ামে হাজির দর্শকের নিরিখে নয়া রেকর্ড ভারতের

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

 

ভারতকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ জিতেছে। কিন্তু এবারের বিশ্বকাপে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বরেকর্ড ধুলোয় মিশিয়ে দিল ভারত। বিশ্বকাপের ম্যাচ চলাকালীন স্টেডিয়ামগুলিতে দর্শক সংখ্যার নিরিখে।

এবারের বিশ্বকাপ মাঠে বসে দেখেছেন ১২ লক্ষের বেশি দর্শক। তবে বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়াম বিশ্বকাপ ফাইনালে সর্বকালীন দর্শকসংখ্যার রেকর্ড ভাঙতে পারেনি বলেই দাবি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

আইসিসির তরফে আজ জানানো হয়েছে, এবারের বিশ্বকাপ মাঠে বসে দেখেছেন ১২ লক্ষ ৫০ হাজার ৩০৭ জন ক্রিকেটপ্রেমী। বিশ্বকাপে যখন ৬টি ম্যাচ বাকি তখনই মাঠে উপস্থিত দর্শকের সংখ্যা ১০ লক্ষের গণ্ডি পেরিয়ে যায়। নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে যত সংখ্যক দর্শক উপস্থিত ছিলেন তাতে আইসিসি খুশি হলেও, ফাইনালে বিশ্বরেকর্ড হয়নি বলেই জানা যাচ্ছে।

আইসিসি বা বিসিসিআইয়ের তরফে নরেন্দ্র মোদী স্টেডিয়ামে কত সংখ্যক মাঠে হাজির ছিলেন তা সরকারিভাবে জানানো হয়নি সোশ্যাল মিডিয়া বা ই-মেল মারফত। স্টেডিয়ামে হাজির থাকা সাংবাদিকদের দাবি, ভারত-অস্ট্রেলিয়া ফাইনাল মাঠে বসে দেখেছেন ৯২,৪৫৩ জন। উল্লেখ্য, মেলবোর্নের এমসিজিতে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে দর্শকসংখ্যা ছিল ৯৩,০১৩।
ফলে এমসিজির রেকর্ড ভাঙতে পারেনি আমেদাবাদে অবস্থিত বিশ্বের বৃহত্তম ক্রিকেট স্টেডিয়াম। এখানে ১ লক্ষ ৩২ হাজার দর্শকাসন। তবে ফাইনালেও তা ভরেনি। ধারাভাষ্যকাররা যতই বলুন না কেন ১ লক্ষ বা ১ লক্ষ ২০ হাজার দর্শক মাঠে হাজির। বাস্তবে সংখ্যাটা অনেক কম। তবে মাঠে বসে সবচেয়ে বেশি দর্শক খেলা দেখেছেন এমন নজির কিন্তু রয়েছে আমেদাবাদেই। ২০২২ সালের আইপিএল ফাইনালে মাঠে ছিলেন ১,০১,৫৬৬ জন দর্শক। যে নজির টপকাতে পারেনি ২০২৩ সালের আইপিএল ফাইনাল।

উদ্বোধনী ম্যাচে সর্বাধিক দর্শকসংখ্যার রেকর্ড গড়েছে এবারের বিশ্বকাপ। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ২০১৯ সালের দুই ফাইনালিস্ট ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক দর্শক মাঠে বসে খেলা দেখেছেন বলে দাবি আইসিসির। তবে আমেদাবাদের ম্যাচগুলির সঠিক দর্শকসংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি আইসিসির বিবৃতিতে।

২০১৫ সালের বিশ্বকাপ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে হয়েছিল। এই প্রথম কোনও বিশ্বকাপ এককভাবে কোনও দেশ আয়োজন করল। ৮ বছর আগের বিশ্বকাপে মাঠে বসে খেলা দেখেছিলেন ১০ লক্ষ ১৬ হাজার ৪২০ জন। ২০১৯ সালের বিশ্বকাপ ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে হয়, মোট দর্শকসংখ্যা ছিল ৭ লক্ষ ৫২ হাজার। ফলে ভারত তৈরি করল নয়া বিশ্বরেকর্ড। টিভি ও ডিজিটাল ভিউয়ারশিপেও সর্বকালীন একাধিক রেকর্ড তৈরি হয়েছে বলে জানাচ্ছে আইসিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *