SSC মামলা থেকে নিজেই সরে গেলেন বিচারপতি গাঙ্গুলি

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

 

 

 

 

স্কুল সার্ভিস কমিশনে নিয়োগ দুর্নীতি যাঁর হাত ধরে সকলের সামনে এসেছিলো , তিনি বিচারপতি অভিজিৎ গাঙ্গুলি। একরকম বাধ্য হয়েই সেই কেস থেকে সরে গেলেন। মূলত স্কুল সার্ভিস কমিশনে নবম থেকে একাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে তোলপাড় হয় বাংলা। দুর্নীতির অভিযোগের ভিত্তিতে একাধিক মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। শিক্ষা ক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতিতে এসএসসি-র সমস্ত মামলা এবার থেকে শুনবে বিচারপতি দেবাংশু বসাক ও বিচারপতি সব্বার রশিদির ডিভিশন বেঞ্চ। মূলত ২০১৬ সালের নিয়োগ সংক্রান্ত মামলা শুনবে দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। শীর্ষ আদালতের ৯ নভেম্বরের নির্দেশক্রমে এই সিদ্ধান্ত প্রধান বিচারপতির টি এস শিবজ্ঞানমের। সম্পূর্ণ ভেঙে পড়েছেন বিচার প্রার্থীরা।

বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এই মামলাগুলি নিজের তালিকা থেকে বাদ দেন।
মূলত স্কুল সার্ভিস কমিশনে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মী নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে তোলপাড় হয় বাংলা। দুর্নীতির অভিযোগের ভিত্তিতে একাধিক মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চ একাধিক ব্যক্তির চাকরি বাতিলের নির্দেশ দেয়। যাঁরা মূলত বেনিয়মে চাকরি পেয়েছিলেন। সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কয়েকজন চাকরিহারা আবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন। শীর্ষ আদালত কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গল বেঞ্চের রায়ের ওপর স্থগিতাদেশ দেয়। সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট এসএসসির নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্ত মামলা হাইকোর্টেই ফিরিয়ে দিয়েছে। কিন্তু বিচারপতি গাঙ্গুলির বিরুদ্ধে প্রথম থেকেই সরব শাসকশ্রেণীর একটা অংশ। এমন কি তাঁরা তাকে তীব্রভাবে ব্যক্তিগত আক্রমন পর্যন্ত করেছে। সেই মামলা থেকে নিজেকে সরিয়ে নিলেন বিচারপতি গাঙ্গুলি। এটা যোগ্য প্রার্থীদের কাছে বড়ো আঘাত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *