যেসব বিষয়ে সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন উত্তাল হতে পারে

বেঙ্গল ওয়াচ নিউজ ডেস্ক ::

লোকসভা নির্বাচনের আগে আটমাস দেরি। রয়েছে রাজনৈতিক উত্তাপ। তারই মধ্যে মণিপুরে পরিস্থিতি নিয়ে বিরোধীদের মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে। বিরোধীরা মণিপুর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেছে। যা প্রেক্ষিতে বর্ষাকালীন অধিবেশনের প্রথম দিন থেকেই সংসদ উত্তাল হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বিরোধীদের তরফে মনিপুর নিয়ে সংসদে প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করা হয়েছে। তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ ব্রায়েন এনিয়ে একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এটা মনিপুর কি বাতের সময়। গত ৩ মে থেকে সেখানে হিংসা চলছে অবিরাম। ইতিমধ্যেই ১০ জন বিরোধী সাংসদ মুলতুবি প্রস্তাব জমা দিয়েছেন মনিপুর নিয়ে।

দুই আদিবাসী মহিলাকে নগ্ন করে প্যারেড করানোর ভিডিও সামনে আসায় ক্ষোভ আরও বেড়েছে। মহিলারা গণধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। রাজ্য পুলিশের তরফে তদন্ত করার কথাও জানানো হয়েছে। সরকারি দলের তরফে বলা হয়েছে, তারা মণিপুর নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত (Monsoon Session of Parliament)।

সরকার বর্ষাকালীন অধিবেশনে (Monsoon Session of Parliament) ৩১ টি পাশ করাতে সময়সূচি তৈরি করেছে। এর মধ্যে দিল্লি পরিষেবা অর্ডিন্যান্সও রয়েছে। এই বিল পাশ হলে দিল্লির আমলাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারে কেন্দ্রীয় সরকারে। এই বিলকে নিয়ে লোকসভার পাশাপাশি রাজ্যসভার অধিবেশন উত্তাল হতে পারে।

রাজ্যসভায় এই বিলের বিপক্ষে রয়েছেন ১০৫ জন সদস্য। অন্যদিকে সরকার ও তাদের সহযোগীদের রয়েছে ১০৫ জন সদস্য। এর বাইরে পাঁচজন মনোনীত সদস্য এবং দুজন নির্দল সাংসদের সমর্থন পেতে আত্নবিশ্বাসী সরকারপক্ষ। এছাড়াও নবীন পট্টনায়েকের বিজেডি এবং জগনমোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেসের ৯ জন করে সদস্য সরকারকে ভোট দেবে বলে আশা।

সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন (Monsoon Session of Parliament) চলবে ১১ অগাস্ট পর্যন্ত। মোট ১৭ দিন অধিবেশন বসবে। পুরনো সংসদ ভবনে অধিবেশন শুরু হলেও, তা নতুন ভবনে স্থানান্তর করা হবে। এপ্রসঙ্গে বলে রাখা ভাল গত মে মাসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নতুন সংসদ ভবনের উদ্বোধন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *